উচ্ছে গাছের পাতা হলুদ হয়ে যাচ্ছে করনীয়

এই পোস্টে আমরা আপনার সাথে শেয়ার করব উচ্ছে গাছের পাতা হলুদ হয়ে যাচ্ছে করনীয় কি? সুতরাং আপনি যদি এটি সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য জানতে চান তবে সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

উচ্ছে গাছের পাতা হলুদ হয়ে যাচ্ছে করনীয়

আমাদের বাড়ির চাকররা নাকি শখের বশে ছাদে উচ্ছে গাছ লাগায়। কিন্তু প্রায়ই দেখা যায় আমাদের শখের গাছের পাতা হলুদ হয়ে যাচ্ছে, পাতা সারি সারি ঝরে পড়ছে, পুরো গাছ মরে যাচ্ছে। এত যত্নের পরও গাছের পাতা হলুদ হয়ে যায়। গাছের পাতা তালিকাভুক্ত করার একাধিক কারণ রয়েছে। গাছের পাতা এক বা অন্য কারণে হলুদ হয়ে যায়। গাছ কেন হলুদ হয়ে যাচ্ছে তার সঠিক যত্ন নিতে পারি না। এখানে আমার অভিজ্ঞতা থেকে কারণ আছে:

See also  গ্রীষ্মকালীন মরিচ চাষ কোরার বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি

উচ্ছে গাছের পানি কম /বেশি হলে

গাছে প্রয়োজনের তুলনায় কম বা বেশি পানি দিলে গাছের পাতা হলুদ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। গাছে পানি কম দিলে পাতা হলুদ হয়ে শুকিয়ে যায়।

উচ্ছে গাছের সার কম /বেশি হলে

আমরা সবাই কমবেশি রাসায়নিক সার ব্যবহার করি। কিন্তু কখন কোন সার ব্যবহার করতে হবে তা অনেকেই জানেন না। তাই এই রাসায়নিক সারের অতিরিক্ত ব্যবহারে পাতা হলুদ হয়ে যায়। এই ক্ষেত্রে, জলে রাসায়নিক সার ধুয়ে ফেলতে প্রচুর জল ব্যবহার করা প্রয়োজন। তাহলে গাছ বাঁচানো সম্ভব হবে।
আবার সার কম দিলে পাতা হলুদ হয়ে ঝরে পড়ে। এর জন্য রোপণের সময় প্রয়োজন অনুযায়ী এনপিকে সার ব্যবহার করতে হবে।

পটাশিয়ামের অভাবে

কখনো কখনো গাছের নিচে সবুজ পাতা দেখা যায় বা গাছের পাতা হলুদ হলেও পথের পাশে সবুজ। এমন পরিস্থিতি হলে গাছে পটাশিয়াম নিয়ে আলোচনা হবে। এই কলার খোসা রোদে শুকিয়ে গাছের গোড়ায় ব্লেন্ড করতে হবে। অথবা গাছের মাটিতে এক চিমটি পটাশিয়াম সার ব্যবহার করতে হবে।

মাটিতে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে গেলে

মাটিতে অক্সিজেনের ঘাটতি থাকলেও পাতা হলুদ হয়ে যেতে পারে। তারপর গাছের টবে মাটির দুই পাশে ২/৩টি পেরেক দিন। যেহেতু নখ লোহা দিয়ে তৈরি, তাই লোহার মরিচা ধরতে বাতাসের অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়। মরিচা মূলত ফেরিক অক্সাইড তাই এই মরিচা তৈরি হলে তা মাটিতে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন সরবরাহ করতে সক্ষম হবে।

See also  লেবু গাছের পাতা কোকড়ানো রোগ

পোকামাকড় আক্রমণ করলে

অনেক সময় পোকামাকড়ের আক্রমণে পাতা হলুদ হয়ে যায়। এ জন্য প্রয়োজন মতো পোকামাকড় নিধনের ব্যবস্থা নিতে হবে। কীটনাশক সুবিধামত স্প্রে করতে হবে।

গাছ নতুন টবে বসানোর সময় কম্পোষ্ট সার না দেওয়া

নতুন চারা রোপণের সময় মাটি তৈরি হলে ভার্মিকম্পোস্ট বা গোবর না দিলেও গাছের পাতা হলুদ হয়ে যায়। এবং প্রতি 2 থেকে 3 মাস অন্তর এই কম্পোস্ট সার দিয়ে মাটি চাষ করতে হবে। এভাবে গাছে প্রয়োজন মতো নিয়মিত খাবার পাবে।

ক্লোরফিলের অভাবে

সম্পূর্ণ যত্নের পরে, পাতাগুলি হলুদ হয়ে যেতে পারে। তাহলে বুঝতে হবে গাছের পাতায় ম্যাগনেসিয়ামের অভাব এবং ফলে ক্লোরোফিলের ঘাটতি রয়েছে। ফলে গাছের পাতা হলুদাভ হয়ে যায় (ফ্যাকাশে হয়ে যায়)। এ ধরনের সমস্যা দেখা দিলে গাছ পর্যাপ্ত খাদ্য উৎপাদন করতে পারবে না এবং ফলে সময়মতো গাছে ফুল ও ফল ধরা বাধাগ্রস্ত হবে।

তাই এক্ষেত্রে উদ্ভিদকে ইপসম সল্ট (বাজারে ম্যাগ সল্ট নামেও পরিচিত) ব্যবহার করতে হবে। ইপসম লবণ 40 থেকে 50 টাকা প্রতি কেজি যা 1 থেকে 2 গ্রাম 1 লিটার পানিতে মিশিয়ে 15 থেকে 20 দিন পর পাতায় স্প্রে করতে হবে।

See also  টবে মরিচ গাছের যত্ন করবেন যেভাবে

ঋতু পরিবর্তন হলে

অনেক সময় যখন ঋতু পরিবর্তন হয়, যেমন গরম থেকে ঠান্ডা বা ঠান্ডা থেকে গরম বা এমনকি বর্ষাকালেও গাছের পাতা হলুদ হয়ে যেতে দেখা যায়। এগুলো স্বাভাবিক ঘটনা। এই সময়ে গাছের পাতা হলুদ হয়ে যেতে পারে যা একটি প্রাকৃতিক ঘটনা। কিন্তু দীর্ঘ সময় ধরে পাতা হলুদ থাকলে বা পড়ে গেলে কিছু ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন।

আপনি এই মুহূর্তে আপনার শখের ছাদ বাগানে এই দুর্দান্ত টিপসগুলি ব্যবহার করতে পারেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *